Monday , 27 May 2024

ডিম্বাণু কি? নারীদের ডিম্বাণুর চিত্র দেখতে চাই

ডিম্বাণু (ইংরেজি: Egg Cell or Ovum) বলতে জীবের স্ত্রীজননকোষ বুঝানো হয় যা জীবের যৌন জনন প্রক্রিয়ায় শুক্রাণুর দ্বারা নিষিক্ত হয়ে থাকে।

ডিম্বাণু সাধারনত হ্যপ্লয়েড ক্রোমোসোম ধারন করে থাকে। নিষিক্ত ডিম্বাণু ডিপ্লয়েড যা প্রথমে জাইগোট গঠন করে যা পরবর্তিতে ভ্রূন এবং শিশু জীবে পরিনত হয়।

উন্নত প্রানীতে  এটি সাধারণত ডিম্বাশয়ে তৈরী হয়। স্তন্যপায়ী প্রানীতে ডিম্বাশয়ে অপরিণত জননকোষ থেকে উওজেনেসিস প্রক্রিয়ায় পরিণত ডিম্বাণু সৃষ্টি করে।

ডিম্বাণু কি? নারীদের ডিম্বাণুর চিত্র দেখতে চাই
ডিম্বাণু কি? নারীদের ডিম্বাণুর চিত্র দেখতে চাই

মানব ডিম্বানু

মানব দেহের সবচেয়ে বড় কোষ হল ডিম্বাণু যা অণুবীক্ষণ যন্ত্রের সাহায্য ছাড়াই খালি চোখে দেখা সম্ভব। মানুষের এটি সাধারনত ০.১২ মিলিমিটার আকারের হয়ে থাকে।

মানুষসহ অন্যান্য অমরাবতী প্রানীতে ডিম্বানুর নিষিক্তকরন প্রাণীদেহের অভ্যন্তরে ঘটে থাকে। মানব ডিম্বানু শুক্রাণু দ্বারা নিষিক্ত হওয়ার পর জরায়ুতে স্থাপিত হয়।

এটি বারে বারে দ্বি বিভক্ত হতে থাকে এবং একপর্যায়ে ব্লাস্টোসিস্ট গঠন করে।

 

মসিকের কত তম দিনে ডিম্বাণু শরীর থেকে বেরিয়ে যায়?

ওউপ্লাজম

ওউপ্লাজম হল ডিম্বানুর কুসুম, এটি একটি কোষীয় বস্তু যা কোষের মধ্যবর্তি স্থানে অবস্থান করে। এটি কোষের নিউক্লিয়াস যেটিকে জার্মিনাল ভেসিকল বলা হয় এবং নিউক্লিউলাস যেটিকে জার্মিনাল স্পট বলা হয়।

স্তন্যপায়ী প্রানীর ডিম্বাণু অতি সামান্য পরিমানে পুষ্টিউপাদান সম্পন্ন কুসুম বহন করে যা [ভ্রূণ|[ভ্রূণের]] প্রারম্ভিক অবস্থাতে পুষ্টির যোগান দেয়।

পাখির ডিম পর্যাপ্ত পরিমাণে পুষ্টি উপাদান ধারণ করে এবং ডিম থেকে বাচ্চা বেরিয়ে আসার পূর্ব পর্যন্ত পুষ্টি সরবরাহ করে থাকে।

 

ডিম্বাণু (ইংরেজি: Egg Cell or Ovum) বলতে জীবের স্ত্রীজননকোষ বুঝানো হয় যা জীবের যৌন জনন প্রক্রিয়ায় শুক্রাণুর দ্বারা নিষিক্ত হয়ে থাকে।

ডিম্বাণু সাধারনত হ্যপ্লয়েড ক্রোমোসোম ধারন করে থাকে।

নিষিক্ত-ডিম্বাণু ডিপ্লয়েড যা প্রথমে জাইগোট গঠন করে যা পরবর্তিতে ভ্রূন এবং শিশু জীবে পরিনত হয়।

উন্নত প্রানীতে এটি ধারণত ডিম্বাশয়ে তৈরী হয়। স্তন্যপায়ী প্রানীতে ডিম্বাশয়ে অপরিণত জননকোষ থেকে উওজেনেসিস প্রক্রিয়ায় পরিণত ডিম্বানুর সৃষ্টি করে।

 

মানব দেহের সবচেয়ে বড় কোষ হল ডিম্বাণু যা অণুবীক্ষণ যন্ত্রের সাহায্য ছাড়াই খালি চোখে দেখা সম্ভব।

মানুষের এটি  ধারনত ০.১২ মিলিমিটার আকারের হয়ে থাকে।মানুষসহ অন্যান্য অমরাবতী প্রানীতে ডিম্বানুর নিষিক্তকরন প্রাণীদেহের অভ্যন্তরে ঘটে থাকে।

মানব ডিম্বানু শুক্রাণু দ্বারা নিষিক্ত হওয়ার পর জরায়ুতে স্থাপিত হয়। এটি বারে বারে দ্বি বিভক্ত হতে থাকে এবং একপর্যায়ে ব্লাস্টোসিস্ট গঠন করে।

মিলনের সময়ে যে সব কাপড় পরিধান করা থাকে, সে কাপড় কি নাপাক হবে?

 

আশাকরি আমাদের আপডেটগুলো আপনাদের কাজে লাগবে।

যদি সমান্যতম কাজে লাগে তবে একটা ধন্যবাদ দিতে ভুলবেন না।

আর নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের সাথে থাকুন।

ফেসবুক পেজ

আমাদের সাইটে কোন প্রকার অশ্লীল আর্টিকেল দেওয়া হয় না। মূলত যৌন জীবনকে সুস্থ্য, সুন্দর ও সুখময় করে তোলার জন্য জানা অজানা অনেক কিছু তুলে ধরা হয়।

এরপরও আপনাদের কোর প্রকার অভিযোগ থাকলে Contact Us মেনুতে আপনার অভিযোগ জানাতে পারেন,

আমরা আপনাদের অভিযোগ গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করব।

ধন্যবাদ আমাদের সাইটের সাথে থাকার জন্য।

আশাকরি আমাদের আপডেট এবং টিপসগুলো আপনাদের কাজে লাগবে।

যদি সমান্যতম কাজে লাগে তবে একটা ধন্যবাদ দিতে ভুলবেন না।

আর নিয়মিত টিপস পেতে আমাদের সাথে থাকুন।

Spread the love

Check Also

যৌন

যৌন নিপীড়নে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের চিত্র

যৌন নিপীড়নের অভিযোগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পাবলিক হেলথ অ্যান্ড ইনফরমেটিকস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *