Friday , 12 April 2024

খিটখিটে স্বভাবের স্বামী বা স্ত্রীকে মোকাবেলা করার ৭টি পদ্ধতি!

বিয়ের কিছু বছর পার হয়ে যাওয়ার পর অনেক নারী-পুরুষকেই খিটখিটে স্বভাবের হয়ে উঠতে দেখা যায়। কিছু যেন তাঁদের ভালো লাগে না, সারাক্ষণ মেজাজ গরম, নিজের স্বামী বা স্ত্রীর মনটাও তাঁরা কিছুতেই বুঝতে চান না, সব কিছু নিয়েই কেবল অভিযোগ আর হুকুমের সুর তাঁদের কণ্ঠে। আপনার স্বামী বা স্ত্রীও কি আজকাল এমনই হয়ে গেছেন? তাহলে জেনে নিন খিটখিটে স্বভাবের সম্পর্কটি আবারও স্বাভাবিক করার তোলার ৭টি উপায়।
শান্ত থাকুন
সবচাইতে প্রথম উপায়টি হচ্ছে শান্ত থাকা। তিনি খিটমিট করলে আপনি যদি উত্তেজিত হয়ে পড়েন, তাহলে সম্পর্ক নষ্ট হতে সময় লাগবে না। মাথা ঠাণ্ডা রাখুন, বোঝার চেষ্টা করুন যে কেন তিনি এমন করছেন। আপনি শান্ত থাকলে ওপর পক্ষ একা একা বেশিক্ষণ খিটিমিটি চালিয়ে যেতে পারবেন না।
সবকিছুকে মনে নেবেন না
রাগের মাথায় মানুষ অনেক কিছুই বলে, সবকিছুকে সিরিয়াসলি মনে নিয়ে নেবেন না। ছোটখাট অনেক কিছুই সম্পর্কে ঘটতে পারে, সেসব দেখেও না দেখার ভান করুন। পাত্তা দিলেই ঝামেলা বাড়বে।
সুযোগ বুঝে আলোচনা করুন

যখন তাঁর মন ভালো থাকবে বা আপনারা অন্তরঙ্গ অবস্থায় থাকবেন, তখন তাঁর সাথে আলোচনা করুন। জানতে চান তাঁর এমন আচরণের কারণ, আপনি যে কষ্ট পান সেটাও জানান। সাথে জানিয়ে দিন যে আপনি সর্বদা তাঁর পাশে আছে এবং যে কোন সাহায্য তাঁকে করতে রাজি আছেন।
তাঁকে খুশি করার চেষ্টা করুন
একটা মানুষ অকারণে খিটখিটে স্বভাবের হয়ে যায় না, বরং প্রচণ্ড মানসিক অশান্তি থেকে এটা হয়। কারণটা যদি জানতে নাও পারেন, চেষ্টা করুন প্রিয় মানুষটিকে খুশি করার, সারপ্রাইজ দেয়ার। তিনি আপনার স্বামী বা স্ত্রী, আপনি নিশ্চয়ই জানেন তাঁকে কীভাবে খুশি করতে হয়?
সম্ভব হলে তাঁর চাপ কমান
যে কারণে মানুষটি এমন খিটখিটে স্বভাবের হয়ে উঠেছেন, সম্ভব হলে তাঁর সেই চাপটি কমানোর ব্যবস্থা করুন। পারিবারিক হোক বা আর্থিক, অফিসের কাজ হোক বা বাসার কাজ কিংবা কোন মানসিক কষ্ট- পাশে একজন মানুষ পেলে সকলেরই ভালো লাগে।
তাঁর প্রশংসা করুন, ভালোবাসা দেখান
প্রশংসা ও ভালোবাসা এমন দুটি জিনিস, যা যে কোন মানুষের মন নরম করতে বাধ্য। সঙ্গী খিটখিটে স্বভাবের হয়ে গেলে আপনি বাড়তি ভালোবাসা দিয়ে অভাবটা পূরণ করে দিন।
আপনি পাল্টা খিটমিট করবেন না মোটেও
সঙ্গী খিটমিট করছেন বলে আপনি যেন পাল্টা করতে যাবেন না। এই কথাটি খুব ভালো করেই মনে রাখুন। এতে সম্পর্ক চরম খারাপ হয়ে যাবে।
সূত্র: প্রিয় লাইফ

আপনার জীবনকে সুন্দর ও আনন্দময় করে তোলার বিভিন্ন টিপস পেতে সাথে থাকুন।ধন্যবাদ

 

Spread the love

Check Also

আপনার হাতে কি ‘M’ চিহ্ন আছে?

আপনার হাতে কি ‘M’ চিহ্ন আছে, জেনে নিন আপনি কেমন? হাত দিয়ে যায় চেনা । …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *