Wednesday , 24 April 2024

বৈশাখী সাজঃ চোখ (পর্ব – ২)

বৈশাখী সাজঃ চোখ

প্রিয় পাঠিকা, আমরা গত পর্বে লিখেছিলাম বৈশাখী সাজে শাড়ি এবং মেকআপ নিয়ে।

আজকের পর্বে লিখছি আরও কিছু বিষয় নিয়ে। আশাকরি আপনাদের ভালো লাগবে।

বৈশাখী সাজঃ চোখ (পর্ব – ২)
বৈশাখী সাজঃ চোখ (পর্ব – ২)

চোখের সাজঃ

চোখের সাজ ছাড়া বাঙ্গালী ললনাকে কল্পনাই করা যায় না।

আর সেটা যদি হয় পহেলা বৈশাখ, তাহলেতো কথাই নেই।

 

চোখ মানুষের সৌন্দর্য্যের আলাদা একটি আকর্ষণ।

ড্রেস বা শাড়ির সঙ্গে মিলিয়ে চোখে স্যাডো দিতে পারেন।

 

স্যাডো দেবার আগে অবশ্যই চোখের নিচে পাউডার লাগিয়ে নিবেন।

চোখকে আকর্ষণীয় করতে চোখের পাপড়ীর মাঝখানের অংশে হালকা কালার করতে পারেন।

 

আর কোনার অংশে দিন ডার্ক এবং উপরের অংশে দিন সফট গোল্ড আই স্যাডো।

 

তবে স্যাডো ব্যবহারের সময় অবশ্যই চোখের আকৃতির দিকে খেয়াল রাখতে হবে, স্যাডো যেন চোখের পুরো অংশে বেন্ড হয়ে যায়।

তারপর আইলাইনার এবং এরপর দিবেন মাশকারা।

চাইলে চোখের নিচে একটু কাজল দিতে পারেন।

 

এরপর নিচের পাউডারটি আস্তে করে ভালো করে মুছে ফেলুন।

এই সাজ আপনার চোখকে আকর্ষণীয় করে তুলবে।

 

আশাকরি আমাদের আপডেটগুলো আপনাদের কাজে লাগবে।

যদি সমান্যতম কাজে লাগে তবে একটা ধন্যবাদ দিতে ভুলবেন না।

আর নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের সাথে থাকুন।

ফেসবুক পেজ

আমাদের সাইটে কোন প্রকার অশ্লীল আর্টিকেল দেওয়া হয় না। মূলত যৌন জীবনকে সুস্থ্য, সুন্দর ও সুখময় করে তোলার জন্য জানা অজানা অনেক কিছু তুলে ধরা হয়।

এরপরও আপনাদের কোর প্রকার অভিযোগ থাকলে Contact Us মেনুতে আপনার অভিযোগ জানাতে পারেন,

আমরা আপনাদের অভিযোগ গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করব।

ধন্যবাদ আমাদের সাইটের সাথে থাকার জন্য।

আশাকরি আমাদের আপডেট এবং টিপসগুলো আপনাদের কাজে লাগবে।

যদি সমান্যতম কাজে লাগে তবে একটা ধন্যবাদ দিতে ভুলবেন না।

আর নিয়মিত টিপস পেতে আমাদের সাথে থাকুন।

নিজেকে আকর্ষণীয় করে তুলতে ঠোঁটের সাজও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। আপনার বৈশাখী পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে লিপিস্টিকের ব্যবহার করতে পারেন। এতে লাল বা অন্য কোন রং এর লিপিষ্টিক ব্যবহার করতে পারেন। তবে বৈশাখীতে লাল এর ব্যবহার বেশীই হয়। ঠোঁটের আকৃতি অনুযায়ী লিপলাইনার দিয়ে ঠোঁট ভালোকরে একেঁ নিতে হবে। এরপর ভালোভাবে লিপিষ্টিক লাগাতে হবে। লিপিষ্টিককে বেশী সময় স্থায়ী করতে চাইলে এর উপর আপনি সামান্য পাউডার লাগিয়ে নিতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই ভালোভাবে ঠোঁট বেন্ট করে নিতে হবে।

চুলের সাজঃ

চুল বাঙ্গালী ললনার অহঙ্কার। বৈশাখী তে চুলের সাজ অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ। যদি চুল স্ট্রেইট হয়, তাহলে চুলে খোপা বা বেরুনী (বেণী) করে নিতে পারেন। তবে সারাদিনের জন্য খোপা করাটাই বুব্ধিমতির কাজ। এছাড়া আপনি বিভিন্ন সাজে আপনার চুলকে সাজাতে পারেন। তবে অবশ্যই চুলে ফুল থাকা চাই। এক্ষেত্রে গোলাপ, গাদা, গাজরা, বেলি কিংবা জুই ফুলের মালা লাগাতে পারেন।

টিপঃ

একটি টিপ ছাড়া পুরো বৈশাখী সাজটাই যেন অসম্পূর্ণ থেকে যায়। যেহেতু বৈশাখ, আপনি আপনার সৌন্দর্য্যকে বাড়াবার জন্য কপালে একটু সুন্দর লাল টিপ অথবা আপনার পোষাকের সঙ্গে মানানসই একটি টিপ পরতে পারেন।

চুড়িঃ

বাঙ্গালী ললনাকে চুড়ি ছাড়া কল্পনাই করা যায় না। যেহেতু বৈশাখ, সেহেতু আপনি আপনার দুহাতে কাঁচের রেশমী চুড়ি পরতে পারেন। অথবা মাটির চুরি ও গহনা পরে নিজেকে বৈশখী সাজে সাজিয়ে নিতে পারেন।

আজকে এ পর্যন্তই, আশাকরি আমাদের দেওয়া টিপস গুলি আপনাকে বৈশাখে সাজতে সাহায্য করবে। আর এ বিষয়ে আরও কোন টিপস বা আর কোন কিছু জানতে চাইলে মন্তব্যের ঘরে আমাদের জানাতে পারেন।

Spread the love

Check Also

পহেলা বৈশাখ বাংলা নববর্ষ কি ও কেন জানুন সঠিক ইতিহাস

বাংলা শুভ নববর্ষ পয়লা বৈশাখ বা পহেলা বৈশাখ (বাংলা পঞ্জিকার প্রথম মাস বৈশাখের ১ তারিখ) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *