Friday , 12 April 2024

কোমল ঠোঁটে লিপবামের উপকারিতা

কোমল ঠোঁটে লিপবামের উপকারিতা জেনে নেওয়া যাক। শীত যে চলে এসেছে, ত্বকই সেটা বলে দিচ্ছে। বাড়তি ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারের সময়ও তাই চলে এসেছে। ঠোঁটে লাগানোর জন্য পেট্রোলিয়াম জেলি বা লিপবামের কদরও তাই বেড়ে গেছে। কিনতে তো পাওয়াই যায়, তবে সবচেয়ে ভালো হয় নিত্যব্যবহার্য এই সৌন্দর্য পণ্য যদি বাড়িতেই বানানো যায়। প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহারের পাশাপাশি নিজের হাতে বানানো হয় বলে স্বাস্থ্যবিধির দিকটিও তাহলে নিশ্চিত করা যায়। চলুন জেনে নিই তিন ধরনের লিপবাম বানানোর নিয়ম।

কোমল
কোমল ঠোঁটে লিপবামের উপকারিতা

গোলাপের লিপবাম
উপকরণ: ১ চা-চামচ গ্লিসারিন, ১ চা-চামচ পেট্রোলিয়াম জেল‍ি, ১ চা-চামচ গোলাপের পাপড়ি ফোটানো পানি।

পদ্ধতি: সব কটি উপকরণ একটি বাটিতে নিয়ে নিন। আরেকটি পাতিলে পানি নিন।এবার উপকরণসহ বাটিটি পানির মধ্যে বসিয়ে দিন। পানি এবং উপকরণের বাটিসহ পাতিলটি চুলার ওপর দিন। কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে সব কটি উপকরণ ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। গরম পানিতে বসিয়েও কাজটি করা যায়। ঠান্ডা করে কাচের বয়ামে রাখুন। ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন। চুলায় জ্বাল দেওয়া হলে দুই সপ্তাহ ধরে লিপবামটি ব্যবহার করা যাবে। না হলে এক সপ্তাহ ভালো থাকবে।

উপকারিতা: গ্লিসারিনের কারণে ঠোঁট বাড়তি ময়েশ্চারাইজার পাবে। পেট্রোলিয়াম জেলির কারণে নরম থাকবে। গোলাপের পাপড়ির পানি ঠোঁটের কালো দাগ দূর করতে সহায়তা করবে।

এ সময়ে পেট্রোলিয়াম জেলি বা লিপবামের কদর বেড়ে যায়
এ সময়ে পেট্রোলিয়াম জেলি বা লিপবামের কদর বেড়ে যায়ছবি: নকশা
বিটরুটের লিপবাম
গোলাপের লিপবামের মতো করেই বানাতে হবে, খালি ১ চা-চামচ গোলাপের পাপড়ি ফোটানো পানির বদলে ১ চা-চামচ বিটরুটের রস দিতে হবে।

উপকারিতা: গ্লিসারিন আর পেট্রোলিয়াম জেলির উপকারিতা তো আগেই বলা হলো। বিটরুটে আছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। ঠোঁট ভালো রাখার পাশাপাশি ঠোঁট ফাটা রোধ করবে। বিটরুটের কারণে বাড়তি রং পাবেন। পাশাপাশি গালেও হালকা লাগিয়ে নিতে পারেন। হালকা গোলাপি আভা চলে আসবে।

আমলকীর লিপবাম
লিপবাম ব্যবহারে ঠোঁট থাকবে কোমল
লিপবাম ব্যবহারে ঠোঁট থাকবে কোমলমডেল: মেধা, ছবি: সুমন ইউসুফ
গোলাপের লিপবামের মতো করেই বানাতে হবে, খালি ১ চা-চামচ গোলাপের পাপড়ি ফোটানো পানির বদলে ১ চা-চামচ আমলকীর রস দিতে হবে।

উপকারিতা: গ্লিসারিন আর পেট্রোলিয়াম জেলির উপকারিতা তো আগেই বলা হলো। আমলকীতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। ঠোঁট ফাটা রোধে সহায়তা করবে।

রাতের বেলা ঘুমের আগে ঠোঁটে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে নিতে পারেন। পুরো রাত ধরে পুষ্টি পাবে ঠোঁট। সকালবেলা ঠোঁটের কোমলতা বুঝতে পারবেন। এ ছাড়া দিনের বেলার জন্য ছোট একটি পাত্রে কিছুটা লিমবাম নিয়ে নিতে পারেন। বাকিটুকু ফ্রিজে রেখে দিন। শীতের শুরু থেকেই যদি ঠোঁটের যত্ন নেওয়া শুরু করেন, শীতজুড়ে ইতিবাচক ফল পাওয়া যায়।

ফাটা !পায়ের গোড়ালি ফাটা কেন হয় এবং এর প্রতিরোধে করণীয়?

ফেসবুক পেজ

আমাদের সাইটে কোন প্রকার অশ্লীল আর্টিকেল দেওয়া হয় না। মূলত যৌন জীবনকে সুস্থ্য,

সুন্দর ও সুখময় করে তোলার জন্য জানা অজানা অনেক কিছু তুলে ধরা হয়।

এরপরও আপনাদের কোর প্রকার অভিযোগ থাকলে Contact Us মেনুতে আপনার অভিযোগ জানাতে পারেন,

আমরা আপনাদের অভিযোগ গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করব।

ধন্যবাদ আমাদের সাইটের সাথে থাকার জন্য।

আশাকরি আমাদের টিপসগুলো আপনাদের কাজে লাগবে।

যদি সমান্যতম কাজে লাগে তবে একটা ধন্যবাদ দিতে ভুলবেন না।

আর নিয়মিত টিপস পেতে আমাদের সাথে থাকুন।

Spread the love

Check Also

ঘি

ঘি কী উপকার ত্বকে ? দেখে নিন

উপকারি ঘি এর কী উপকার ত্বকে? ঘি তে ভিটামিন এ, ভিটামিন ডি ও ভিটামিন সি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *